মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কার্যবিবরণী ও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

উপজেলা আইনশৃংখলা কমিটির  ০৯/০৬/১৩ খ্রিঃ তারিখে অনুষ্ঠিত সভার কার্যবিবরণীঃ

                                    সভাপতি                    ঃ         মোঃ অহিদুল ইসলাম

                                                                              উপজেলা নির্বাহী অফিসার

                                                                              লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।                                                                             

                                   সভার স্থান                   ঃ        উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন

                                                                              লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

                                 সভার তারিখ ও সময়         ঃ       ০৯/০৬/১৩ খ্রিঃ সকাল ১০.০০ টা।

                        সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দ              ঃ        পরিশিষ্ট ‘‘ক ও খ ’’ তে দেখানো হলো

                                                                              (স্বাক্ষরের  ক্রমানুসারে)।

 

                        সভাপতি উপজেলা আইনশৃংখলাকমিটির সভায় উপস্থিত সদস্যদের স্বাগত জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করেন। তিনি সভায় বিগত সভার কার্যবিবরণীর সিদ্ধামত্মসমূহ পাঠ করে শুনান। কার্যবিবরণীতে কোন সংশোধনী না থাকলেতা দৃঢ় করণের প্রসত্মাব করেন। কার্যবিবরণীতে কোন সংশোধন প্রসত্মাব উত্থাপিত না হওয়ায় তা সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়করণ করা হয়। অতঃপর তিনি  অফিসার-ইন-চার্জ,লৌহজং থানার প্রতিনিধি এস,আই জনাব মিন্টু মন্ডলকে বর্তমান  আইন শৃংখলা পরিস্থিতি সম্পর্কে তার বক্তব্য পেশ করার অনুরোধ জানান।

 

০১।   জনাব মিন্টু মন্ডল,এস,আইলৌহজং থানা বলেন যে, থানায় গত মাসে ২২ টি মামলা রুজু হয় তন্মধ্যে নারী নির্যাতনের ০২ টি মামলা রয়েছে। মামলা ০২ টি তদমত্মাধীন আছে। অন্যান্য মামলাগুলির বিষয়ে  সরেজমিন তদমত্মপূর্বক যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে । চুরি/ডাকাতি/রাহাজানি/সামাজিক বিপর্যয়সহ অন্যান্য বিষয়ে উপজেলার আইন শৃংখলা পরিস্থিতি তুলনামূলকভাবেভাল। রাত্রিকালীন পুলিশ টহল ডিউটি ভোর ৫.০০ টা পর্যমত্ম করা হয়েছে। কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম চালু হয়েছে। ট্রান্সফরমার চুরি বন্ধ করার জন্য পাহারা বসানো হয়েছে এবং জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম চালু রয়েছে। তারপরও এ বিষয়গুলিরপর্যালোচনায় বলা যায় যে, লৌহজং উপজেলার আইন শৃংখলা  স্বাভাবিক পর্যায় রয়েছে। আইন শৃংখলার উন্নয়নের বিষয়ে প্রতিমাসের ৮ তারিখে জনসাধারনের সাথে মতবিনিময় সভা করা হয়। মাদকের ব্যাপকতা যাতে বৃদ্ধি না পায় সেদিকে সর্তক দৃষ্টি রাখা হচ্ছে এবং বাল্য বিবাহ ও ইভটিজিং সংক্রামত্ম কোন তথ্য পেলে তাৎক্ষণিক সংশ্লি­ষ্টদের অবহিত করার জন্য অনুরোধ জানান। এ বিষয়ে তিনি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ সর্বসাধারণের  সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

০২। জনাব হাজী মোঃ ইউসুফ,চেয়ারম্যান, মেদিনীমন্ডল ইউপি সভায় বলেন যে, কিছুদিন পূর্বে মাওয়া ঘাটে একটি মোবাইল ফোন ছিনতাই এর ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলে সাধারণ জনগন ছিনতাইকারীকে গণপিটুনিতে মেরে ফেলে। মাওয়া ঘাটে পুলিশ ফাuঁড় থাকার পরও ঘটনার সময় সেখানে পুলিশ উপস্থিত হতে পারেনি। পুলিশ ফাঁড়ি থাকার পরও পুলিশ অনুপস্থিত থাকা কাম্য নয়। এ ব্যাপারে অফিসার ইন-চার্জকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য বলা হয়।  তাছাড়া তার ইউনিয়নের আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান।

০৩। জনাব মোঃ জহিরুল ইসলাম,চেয়ারম্যান,কলমা ইউপি সভায় বলেন যে, সি,এস ও এস,এ খাস হলেও আর,এস রেকর্ডে ব্যক্তিমালিকানাধীন হওয়ায় বিভিন্ন লোকজন খাল ভরাট করছে এবং দখল নিয়ে ঝগড়ার সৃষ্টি হচ্ছ্যে। এ বিষয়ে মামলা মোকদ্দমা চলছে। সরকারী খাল দখল বন্ধ করতে হবে। সহকারী কমিশনার (ভূমি) কে দ্রুত খালের সীমানা নির্ধারণ করতে অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া অত্র ইউনিয়নের আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান।

০৪।  জনাব মোঃ মহসিন গাজী,চেয়ারম্যান,হলদিয়া ইউপি সভায় বলেন যে,গোয়ালীমান্দ্রা এলাকায় নেশা জাতীয় দ্রব্য বিক্রি হয় বেশি। কিছুদিন আগে একটি গাড়ী করে এক বসত্মা ফেনসিডিল আসছে বলে লোকমুখে জানা যায়। অনেক যুবক ছেলে মটরসাইকেলে করে এখানে এসে নেশা করে বলে জানা যায়। এ বিষয়ে অফিসার ইনচার্জ,লৌহজং থানাকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার অনুরোধ করেন। তাছাড়া তার ইউনিয়নের আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান।

০৫। জনাব আবুল কালাম আজাদ,চেয়ারম্যান, কনকসার ইউপি সভায় বলেন যে, ইদানিং লক্ষ্য করা যাচ্ছে কয়েকজন ছেলে মিলে ইউনিয়ন পরিষদ, ব্রাক্ষণগাঁও স্কুল ও মসদগাঁও মাদ্রাসার সামনে আড্ডা দেয় এবং স্কুলের মেয়েদের দেখলে ইভটিজিং করে। তাদের আইনের আওতায় এনে শাসিত্ম দেওয়ার অনুরোধ জানান। এলাকার মুরবিবরা ওদের দেখলে যাতে সাথে সাথে পুলিশে সোপর্দ করে সে বিষয়ে অনুরোধ জানানো হয়। ইভটিজিং এর অপরাধ করলে সাথে সাথে এর শাসিত্ম প্রদান করতে হবে। এছাড়া অত্র ইউনিয়নের আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান।

০৬। জনাব মোহাম্মদ আলী, চেয়ারম্যান, বিআরডিবি সভায় জানান যে, প্রায় সময়ে দেখা যায় স্কুলের সামনে ছেলেরা ইভটিজিং এর ঘটনা ঘটায় যা মোটেও কাম্য নয়। প্রায় দেখা যায় বিভিন্ন এলাকা থেকে এখানে বহিরাগত লোকজন আসে এ বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টিরাখতে হবে। তা নাহলে তারা যে কোন ধরণের নাশকতামূলক কর্মকান্ড ঘটাতে পারে। কায়তারা মাদ্রাসার দিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখা দরকার। এছাড়া অত্র ইউনিয়নের আইন শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান।

০৭।  জনাব মোঃ মাসুদ খান, সভাপতি, বিক্রমপুর প্রেস ক্লাব সভায় বলেন যে, মাওয়া ঘাটে আনুমানিক রাত ২.০০ টায় মোবাইল ছিনতাই এর ঘটনা ঘটে। এতে গণপিটুনিতে একজন ছিনতাইকরাী নিহত হয়। প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। তিনি এ উপজেলার আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী,জনপ্রতিনিধি,রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দসহ সকলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

০৮। বেগম রানু আখতার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, লৌহজং সভায় জানান যে, বর্তমানে কলেজ ও স্কুলের ছাত্রীরা ইভটিজিং এর স্বীকার। কলেজের অধ্যক্ষ ও স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের ইভটিজিং বন্ধে কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়া দরকার। কিছুদিন পূর্বে মাওয়া ঘাটে আনুমানিক রাত ২.০০টায় মোবাইল ছিনতাই এর ঘটনা ঘটে। এতে গণপিটুনিতে একজন ছিনতাইকরাী নিহত হয়। এটি একটি সাজানো ঘটনা হতে পারে। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদমত্ম না হলে ভবিষ্যৎ তে এ ধরণের ঘটনার পূনরাবৃত্তি হতে পারে। এ ব্যাপারে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে আরও সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য বলা হয়। এ ছাড়া অত্র  উপজেলারআইন শৃংখলা পরিস্থিতি ভাল ।

০৯। জনাব মোঃ জাকির হোসেন,ভাইস-চেয়ারম্যান, লৌহজং উপজেলা সভায় বলেন যে, মোবাইল ছিনতাই এর ঘটনায় লৌহজং এর লোকজন একটি মোবাইল এর জন্য একজন ছিনতাইকারীকে খুন করে ফেলবে তা বিশ্বাসযোগ্য নয়। বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড আইন-শৃঙ্খলার চরম অবনতি। ছিনতাইকারীর আইন মোতাবেক বিচার হওয়া উচিত ছিল। রাত ১২.০০ টার ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় সকাল ৭.০০ টায়। এ ব্যাপারে নিন্দা জানানো হয়। এ ছাড়া অত্র  উপজেলারআইন শৃংখলা পরিস্থিতি ভাল ।

১০। জনাব মোঃ ওসমান গনী তালুকদার, চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ,লৌহজং ও  উপদেষ্টা , আইন শৃংখলা কমিটি সভায় বলেন যে,মাওয়া ঘাটে আনুমানিক রাত ১২.০০ টায় মোবাইল ছিনতাই এর ঘটনা ঘটে। এতে গণপিটুনিতে একজন ছিনতাইকারী নিহত হয়। এ ঘটনায় ঘটনাস্থলে পুলিশ সকাল ৭.০০ টায় উপস্থিত হয়েছে যা অনভিপ্রেত ও দুঃখজনক। মাওয়া ফাঁড়ির পুলিশ কর্মকর্তা/কর্মচারীরা প্রশ্নবিদ্ধ। এ সকল কাজে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হয় বলে সভায় জানান। বিক্রমপুর ঢাকার পাশ্ববর্তী হওয়ায় ঢাকার অনেক অপরাধী বিক্রমপুরে এসে আশ্রয় নেয়। সকলকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। তাদের আশ্রয় দেওয়া উচিত নয়। তাহলে বিক্রমপুরে অপরাধের মাত্রা অনেক বেড়ে যাবে। এ ছাড়া অত্র  উপজেলারআইন শৃংখলা পরিস্থিতি ভাল ।

 

         উপরিউক্ত বিষয়াবলী  বিসত্মারিত  আলোচনা পর্যালোচনামেত্ম নিম্নলিখিত সিদ্ধামত্মসমূহ সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয় ।

           

 

সিদ্ধামত্মসমূহঃ

বাসত্মবায়নে

ক)

থানায় রুজুকৃত মামলাসমূহ দ্রুততার সাথে নিষ্পন্নের ব্যবস্থা  করতে হবে।

অফিসার-ইন-চার্জ, লৌহজং থানা  ।

খ)

 ইউনিয়ন পর্যায়ে আইন শৃংখলা কমিটির সভা করতে হবে  এবং গ্রাম/কমিউনিটি পুলিশ দিয়ে পাহরার ব্যবস্থা করতে হবে।

 ইউপি চেয়ারম্যান/.অফিসার-ইন-চার্জ, লৌহজং থানা ।

গ)

আইন শৃংখলা স্বাভাবিক রাখতে  নৌপথে ও স্থল পথে রাত্রিকালীন পুলিশী টহল জোরদার করতে হবে। ট্রান্সফরমার চুরি রোধে গ্রাহকদের নিয়ে রাত্রিকালীন পাহারার ব্যবস্থা করতে হবে।

অফিসার-ইন-চার্জ, লৌহজং থানা/ইউপি চেয়ারম্যান(সকল) ।

ঘ)

লৌহজং উপজেলাকে মাদকমুক্ত/ফরমালিনমুক্ত করতে হবে। এ জন্য ইউনিয়ন পর্যায়ে জনসচেতনতামূলক সমাবেশ করতে হবে।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা/অফিসার-ইন-চার্জ, লৌহজং থানা/ইউপি চেয়ারম্যান(সকল) ।

ঙ)

মাদকদ্রব্যের ব্যবহার কঠোর হসেত্ম দমন করতে হবে। বিশেষ করে মাদকের বিষয়ে র‌্যালী/সমাবেশ করতে হবে।

চেয়ারম্যান (সকল) ইউপি / অফিসার-ইন-চার্জ, লৌহজং থানা ।

চ)

বাল্য বিবাহ/নারী নির্যাতন ও যৌতুক প্রথা রোধ করতে হবে। এ বিষয়ে গণসচেতনতা কার্যক্রম গ্রহণ করতে  হবে।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা,লৌহজং ও চেয়ারম্যান (সকল) ইউপি ।

ছ)

ইভটিজিং এর বিষয়ে আরো ব্যাপক প্রচারের ব্যবস্থা করতে হবে। প্রতিটি ইউনিয়নে ইভটিজিং বিরোধী জনসচেতনতামূলক সভা করতেহবে।

উপজেলা শিক্ষা অফিসার/উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার/অফিসার ইনচার্জ,লৌহজং থানা/ইউপি চেয়ারম্যান(সকল)।

জ)

কলমা(একটি স্থায়ী/অস্থায়ী পুলিশ ফাঁড়িঁ) স্থাপন করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে।

অফিসার-ইন-চার্জ, লৌহজং থানা ।

ঝ)

কলমা বাজারের খাল ভরাট/দখল এর বিষয়ে আইনানুগ প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে।

সহকারী কমিশনার (ভূমি), লৌহজং ও অফিসার-ইন-চার্জ, লৌহজং থানা ।

ঞ)

আসন্ন পবিত্র শবেবরাতে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির যাতে কোন অবনতি না ঘটে সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে।

অফিসার-ইন-চার্জ, লৌহজং থানা ।

 

                   অতঃপর সভায় আর কোন আলোচ্য বিষয় না থাকায় সভাপতি অত্র উপজেলার সার্বিক আইনশৃংখলা পরিস্থিতি উন্নয়নে সকলকে আমত্মরিকভাবে কাজ করার অনুরোধ জানিয়ে উপস্থিত সদস্যদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

                                                                                                                                       

                                                                                                                                          স্বা/-

(মোঃ অহিদুল ইসলাম)

সভাপতি

উপজেলা আইনশৃংখলা কমিটি

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

 

স্মারক নং  ঃ  ০৫.৩০.৫৯৪৪.০০৬.০০.০১৪.০৬-      (৩০)                                                                   তারিখঃ     /০৬/২০১৩ খ্রিঃ।

 

                     অনুলিপি সদয় অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রেরণ করা হলোঃ

১।                 অধ্যাপিকা সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি এমপি, মাননীয় হুইপ, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ ও মূখ্য

                     উপদেষ্টা, উপজেলা আইনশৃংখলা কমিটি, লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ। 

২।                 জেলা প্রশাসক, মুন্সীগঞ্জ।

৩।                পুলিশ সুপার, মুন্সীগঞ্জ। 

৪।                 চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, লৌহজং। 

৫।                 ............................................................................অফিসার, লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

৬।                চেয়ারম্যান, .................................................... ......... ইউ,পি, লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

৭।                 .....................................................................................  লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

 

                              উপজেলা নির্বাহী অফিসার

                                   লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

উপজেলা পর্যায়ে সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধ কমিটির ৪র্থ সভার কার্যবিবরণীঃ

                                    সভাপতি                                    ঃ মোঃ অহিদুল ইসলাম

                                                                                     উপজেলা নির্বাহী অফিসার

                                                                                     লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।                                                     

                                    সভার স্থান                                 ঃ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন

                                                                                     লৌহজং, মুন্সীগঞ্জ।

                                    সভার তারিখ ও সময়                   ঃ  ০৯/০৬/১৩ খ্রিঃ সকাল ১০.৩০ টা।

                                    সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দ                 ঃ        পরিশিষ্ট ‘‘ক’’ তে দেখানো হলো (স্বাক্ষরের

                                                                          ক্রমানুসারে)।

                        সভাপতি উপজেলা সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধ কমিটির সভায় উপস্থিত সদস্যদের স্বাগত জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করেন। তিনি সভায় বিগত সভার কার্যবিবরণীর সিদ্ধামত্মসমূহ পাঠ করে শুনান। কার্যবিবরণীতে কোন সংশোধনী না থাকলে তা দৃঢ় করণের প্রসত্মাব করেন। কার্যবিবরণীতে কোন সংশোধনী প্রসত্মাব উত্থাপিত না হওয়ায় তা সর্বসসম্মতিক্রমে দৃঢ়করণ করা হয়।  বিসত্মারিত আলোচনামেত্ম  নিম্নবর্ণিত সিদ্ধামত্মসমূহ সর্বসম্মতভাবে গৃহীত হয়।

০১।   ইউনিয়ন কমিটির সভা করে সভার কার্যবিবরণী  আগামী ০৫ কার্যদিবসের মধ্যে নিম্নস্বাক্ষরকারী বরাবর প্রেরণ করতে হবে।

০২।   আগামী ০৭ কার্য দিবসের মধ্যে ওয়ার্ড কমিটি  গঠনপূর্বক নিম্নস্বাক্ষরকারীকে অবহিত করতে হবে।

০৩।   প্রতিটি ইউনিয়নে র‌্যালী করতে হবে।উক্ত র‌্যালীতে উপজেলা কমিটির সকল সদস্য উপস্থিত থাকবেন মর্মে সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

০৪।   কমিটির সদস্যরা বিভিন্ন মসজিদে উপস্থিত থেকে জুম্মার নামাজের পূর্বে সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধে বক্তব্য রাখার অনুরোধ করাহয় ।

০৫।    হেফাজতে ইসলামের নামে যাতে কেহ বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করতে না পারে সে বিষয়ে সকলকে সর্তক দৃষ্টি রাখতে অনুরোধ জানানো হয়।

০৬।    গাওদিয়া ইউনিয়ন সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধ কমিটিতে গাওদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব হাজী মোঃ নাদের খানকে সভাপতি করার জন্য সভায় উপস্থিত সকল ইউপি চেয়ারম্যান অনুরোধ করেন এবং সর্বোসম্মতিক্রমে চেয়ারম্যানকে সভাপতি করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

০৭।   এ উপজেলার সকল মাদ্রাসা শিক্ষকদের ছবি, ভোটার আইডি কার্ড, জন্ম নিবন্ধনসহ স্থায়ী ও অস্থায়ী ঠিকানা স্ব স্ব ইউনিয়ন পরিষদে প্রেরণ করতে হবে।

                   বাসত্মবায়নেঃ (১) সভাপতি/সম্পাদক, মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটি।

                          (২) অধ্যক্ষ, সকল মাদ্রাসা।

                 সভায় আর কোন আলোচ্য বিষয় না থাকায় সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

 

                                                                                                                                                      স্বা/-

 

(মোঃ অহিদুল ইসলাম)

সভাপতি

উপজেলা সন্ত্রাস ও নাশকতা প্রতিরোধ কমিটি

উপজেলা নির্বাহী  অফিসার

লৌহজং,মুন্সীগঞ্জ ।

 

০৫.৩০.৫৯৪৪.০০৫.০০.০০২.১৩-     (৪০)                                  তারিখঃ     /০৬/২০১৩ খ্রিঃ

           

  অনুলিপিঃ সদয় অবগতির জন্যঃ

১।  জেলা প্রশাসক,মুন্সীগঞ্জ ।

২।  চেয়ারম্যান,উপজেলা পরিষদ,লৌহজং ।

৩।  চেয়ারম্যান, ....................ইউনিয়ন পরিষদ,লৌহজং ।

 

                                              উপজেলা নির্বাহী  অফিসার

                                                   লৌহজং,মুন্সীগঞ্জ ।