মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

যোগাযোগ ব্যবস্থা

লৌহজং উপজেলা সড়ক পথে রাজধানি ঢাকা হতে প্রায় ৫০কি.মি দুরবর্তীতে অবস্থীত।গাং চিল পরিবহন এ উপজেলার সাথে ঢাকার একমাত্র বাস যোগাযোগের মাধ্যম। ঢাকার বাবুবাজার ব্রিজের নিকট হতে ১৫ মিনিট পর পর বাস ছেড়ে আসে। বাস ভাড়া মাত্র ৭০ টাকা।

মুন্সিগঞ্জ সদর হতে টেম্পু যোগে মুক্তারপুর ব্রিজ, মুক্তারপুর ব্রিজ হতে টেম্পু যোগে বালিগাও বাজার, অতঃপর বালিগাও বাজার হতে টেম্পু যোগে লৌহজং, এ ভাবে মুন্সিগঞ্জ এর সাথে যাতায়াত করা যায়।   

এছাড়া বাংলাদেশের দক্ষিণাংশের ২১ টি জেলার সাথে ঢাকার যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম মাওয়া ফেরীঘাট। বাংলাদেশের অন্যতম বৃহত্তম ফেরিঘাট মাওয়া। এখানে একই সাথে তিনটি ফেরী চলাচল করে থাকে। রো রো ফেরি,ডাম্ব ফেরী এবং কে টাইপ এই তিন ধরনের ফেরী আছে। সর্বমোট ১৮ টি ফেরী এ রুটে চলাচল করে থাকে। বাংলাদেশের দক্ষিণ অংশের সাথে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম এ ফেরী ঘাট। মাওয়া কাওরাকান্দি ও মাওয়া শরিয়তপুর রুটে ২৪ ঘণ্টা ব্যাপি ফেরী চলাচল করে থাকে।

এছাড়া স্পীডবোটের মাধ্যমে মাত্র ২০-২৫ মিনিটে পদ্মা নদী পার হওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। ভাড়া মাত্র ১৩০ টাকা জনপ্রতি। অন্যদিকে বি আই ডাবলু টি এ কর্তৃক ছোট ছোট লঞ্চ পরিচালনা করা হয়ে থাকে। ১০ মিনিট পর পর কাওরাকান্দি ও শরিয়তপুর এর উদ্দেশে এসব লঞ্চ ছেড়ে যায়। মাওয়া কাওরাকান্দি রুটে ভাড়া মাত্র ৬০ টাকা।

অন্যদিকে মাওয়া ফেরীঘাট পর্যটন সমৃদ্ধ একটি এলাকা। এখানে এলে উপভোগ করা যাবে পদ্মার অপার সৌন্দ্রয সৌন্দর্য ।